বরিশাল থেকে কুমিল্লায় এসে প্রেমিকের সন্ধান না পেয়ে ১০ মাসের শিশুকে অপহরন

0
31

অলাইন ডেস্ক ঃঃ
বরিশাল থেকে কুমিল্লায় এসে প্রেমিকের সন্ধান না পেয়ে আবু ছাহিদ নামে ১০ মাসের শিশুকে অপহরন করে সাবিনা আক্তার (২০) নামে এক তরুণী। শিশুকে ফিরিয়ে নিতে হলে তার প্রেমিক ফারুকের সাথে দেখা করানো শর্ত দেয়া হয়। সোমবার ( ৬ সেপ্টেম্বর) রাতে চান্দিনা মাইজখার মোহোরআলী বাড়ীতে শিশু অপহরণের ঘটনা ঘটে ।


পরবর্তীতে পরিবারের পক্ষ থেকে থানায় অভিযোগ দিলে । তথ্য প্রযুক্তির মাধ্যমে পুলিশ ও ডিবি যৌথ অভিযান পরিচালনা করে । মঙ্গলবার ( ৭ সেপ্টেম্বর) সকালে বরিশালের মাওয়া ঘাট থেকে ওই প্রেমিকার কাছ থেকে ১০ মাসের শিশুকে উদ্ধার করে । এসময় প্রেমিক ফারুকের সাথে দেখা হলেও শিশু অপহরের অভিযোগে আটক হলেন সাবিনা আক্তার ।

জানা যায়, সাবিনা আক্তার (২০) প্রেম করতেন চান্দিনা উপজেলার মাইজখার গ্রামের মো. ফারুকের সাথে । কিন্তু সম্প্রতি তুচ্ছ ঘটনা নিয়ে মনমালিন্য হলে যোগাযোগ বন্ধ করে দেয় ফারুক । দীর্ঘদিন প্রেমিকের খবর না পেয়ে প্রেমের টানে বরিশাল কাওনিয়া উপজেলার দিবাকার গ্রাম থেকে কুমিল্লার চান্দিনা মাইজখার গ্রামে এসে হাজির হয়। প্রেমিকা সাবিনা প্রেমিকের বাড়ি মোহারআলীতে গেলেও দেখা পেলো না ফারুকের সন্ধান। ফারুকের পরিবারের লোকজনও তাকে পাত্তা দেয় নি।

এ সময় উপায় না পেয়ে সাবিনা আশ্রয় নেয় ফারুকের বাড়ির পাশের এক প্রতিবেশী মো. এরশাদুল হকের বাড়িতে। দুই দিন ঘুরাঘুরি করেও প্রেমিক ফারুকের সন্ধান পায়নি সাবিনা। অবশেষে সাবিনাকে আশ্রয় দেয়া প্রতিবেশীর এরশাদুল হকের ১০মাসের শিশু সন্তান আবু ছাহিদকে নিয়ে পালিয়ে যায় প্রেমিকা সাবিনা। যোগাযোগ করলে সাবিনার শর্ত হলো প্রেমিক ফারুককে সঙ্গে নিয়ে যেতে হবে তার বাড়ি বরিশাল কাওনিয়া উপজেলার দিবাকার গ্রামে। তাহলেই ফেরত পাবে অপহরণকৃত শিশুটিকে।

বিষয়টি নিশ্চিত করে কুমিল্লা জেলা গোয়েন্দা (ডিবি) পুলিশের এসআই পরিমল চন্দ্র দাস বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, মঙ্গলবার সকালে অভিযান পরিচালনা করে সাবিনা আক্তারকে আটক করা হয়েছে।

চান্দিনা থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ( ওসি) আরিফুর রহমান বলেন, শিশুটিকে বরিশালের মাওয়া থেকে চান্দিনায় আনা হয়েছে। এ ঘটনায় অপহরণকারীকে আটক করা হয়েছে। এই বিষয়ে আইনী ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীণ রয়েছে।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে