Free YouTube Subscribers
anb24.net
সত্যের সন্ধানে আমরা বিশ্ব জুড়ে

নভেম্বরের যুক্তরাষ্ট্রে রাজনৈতিক সহিংসতার আশঙ্কা-নির্বাচনের মাত্র ৯ দিন বাকি।

0 34

Get real time updates directly on you device, subscribe now.

যুক্তরাষ্ট্রের ইতিহাসের খুবই গুরুত্বপূর্ণ মধ্যবর্তী নির্বাচন হতে যাচ্ছে আগামী ৮ নভেম্বর। নির্বাচনের মাত্র এক সপ্তাহ বাকি। নির্বাচনের আগে কংগ্রেসের প্রতিনিধি পরিষদের স্পিকার ন্যান্সি পেলোসির স্বামী পল পেলোসি নিজেদের বাড়িতে এক হামলাকারীর ‘আক্রমণের শিকার’ হয়েছেন। এই হামলার ঘটনার পর নির্বাচনের আগে দেশজুড়ে রাজনৈতিক সহিংসতার আশঙ্কা করা হচ্ছে।

এই আশঙ্কাকে আরও জোরালো করেছে সরকারের একটি সতর্কবার্তা। গত শুক্রবার পল পেলোসির উপর হামলার খবরের মাত্র কয়েক ঘন্টা পরই মার্কিন সরকার সারা দেশের আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যদের কাছে একটি বুলেটিন বিতরণ করেছে। বুলেটিনে বলা হয়েছে, নির্বাচনের আগে প্রার্থী এবং নির্বাচনী কর্মীদের ওপর সহিংসতা ও হামলার ঘটনা বেড়ে যেতে পারে। আদর্শগতভাবে ক্ষুব্ধ চরমপন্থীরা এসব হামলা চালাতে পারে।

এছাড়া গত শুক্রবার যুক্তরাষ্ট্রের বিচার বিভাগ ঘোষণা করেছে, পেনসিলভানিয়ার এক কংগ্রেসম্যানের বিরুদ্ধে ফোনে একাধিক বার হত্যার হুমকি দেওয়ার জন্য এক ব্যক্তিকে দোষী সাব্যস্ত করা হয়েছে।

আগামী ৮ নভেম্বরের মধ্যবর্তী নির্বাচনে যারা জয়লাভ করবেন তারাই পরের বছর মার্কিন পার্লামেন্টে কংগ্রেসের নিয়ন্ত্রণ পাবে। রিপাবলিকান পার্টি তার সমর্থকদেরকে বলছে যে, ডেমোক্রেটিক পার্টির প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনকে ঠেকানোর এটা শেষ সুযোগ। অন্যদিকে, ডেমোক্রেটরা বলছে যে, এই নির্বাচনে তারা হেরে গেলে মার্কিন গণতন্ত্রই ঝুঁকিতে পড়ে যাবে।

এর আগে ডোনল্ড ট্রাম্পসহ রিপাবলিকান পার্টির বহু নেতা ২০২০ সালের নির্বাচনের ফলাফল প্রত্যাখ্যান করেছিল এবং যুক্তরাষ্ট্রের পার্লামেন্ট ভবনে হামলায় উস্কানি দিয়েছিল। এর ফলে যুক্তরাষ্ট্রে রাজনৈতিক বিভাজন আরও তীব্র হয়েছে এবং মার্কিন গণতন্ত্র হুমকির মুখে পড়েছে।

শুক্রবার মার্কিন কংগ্রেসের প্রতিনিধি পরিষদের স্পিকার ন্যান্সি পেলোসির সান ফ্রান্সিসকোর বাড়িতে ঢুকে এক অনুপ্রবেশকারী তাকে দেখতে চেয়েছিল, না পেয়ে তার স্বামী পল পেলোসিকে (৮২) হাতুড়ি দিয়ে পেটায়। স্থানীয় সময় শুক্রবার রাত ২টার পর চালানো এ হামলায় পল মাথায় ও ডান হাতে আঘাত পান বলে জানিয়েছেন কর্মকর্তারা। হামলার পর পলকে দ্রুত সান ফ্রান্সিসকোর একটি হাসপাতালে নেওয়া হয়। সেখানে তার ফেটে যাওয়া মাথা, আঘাত পাওয়া ডান হাত ও বাহুতে অস্ত্রোপচার করা হয়েছে বলে এক বিবৃতিতে জানিয়েছেন স্পিকার পেলোসির একজন মুখপাত্র। চিকিৎসকরা আশা করছেন, পল দ্রুতই সুস্থ হয়ে উঠবেন।

ঘটনাস্থল থেকে যে ব্যক্তিকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে তাকে ডেভিড ডেপাপে (৪২) বলে শনাক্ত করেছে পুলিশ। ডেপাপেকেও হাসপাতালে নেওয়া হয়েছে। ডেপাপের বিরুদ্ধে হত্যা চেষ্টা, মারাত্মক অস্ত্র দিয়ে হামলা, বৃদ্ধের সঙ্গে দুর্ব্যবহার, সহিংসতা, অবৈধ অনুপ্রবেশ ও অন্যান্য অপরাধের অভিযোগ আনা হয়েছে; তাকে সান ফ্রান্সিসকো কাউন্টি কারাগারে রাখা হয়েছে।

মার্কিন ক্যাপিটল পুলিশ জানিয়েছে, প্রতিনিধি পরিষদের ডেমোক্রেট দলীয় স্পিকার পেলোসি যিনি মার্কিন প্রেসিডেন্টের উত্তরাধিকার হিসেবে সাংবিধানিক পদক্রমে দ্বিতীয় অবস্থানে আছেন, হামলার সময়টিতে ওয়াশিংটনে সুরক্ষিত অবস্থায়ই ছিলেন।

পুলিশ প্রধান স্কট জানান, কী উদ্দেশ্যে গভীর রাতে হামলাটি চালানো হয়েছে কর্তৃপক্ষ তা তদন্ত করে দেখছে। পুলিশ কর্মকর্তারা জরুরি-৯১১ থেকে খবর পেয়ে পেলোসির বাড়িতে গিয়ে হামলার ঘটনা প্রত্যক্ষ করেন ও হামলাকারীকে গ্রেপ্তার করেন।

হামলাকারীর বিষয়ে তাৎক্ষণিকভাবে বিস্তারিত কিছু জানা যায়নি। তবে সে যুক্তরাষ্ট্রের সাবেক প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের সমর্থক হতে পারে বলে কিছু ওয়েবসাইট ইঙ্গিত দিয়েছে।

Get real time updates directly on you device, subscribe now.

Leave A Reply

Your email address will not be published.