এএনবি২৪ ডট নেট/ASIAN NEWS BROADCAST

চলমান বিশেষ কর্মসূচির অধীনে মালদ্বীপে নিয়মিত হয়েছেন ১৬ হাজার বাংলাদেশি

0 49

মালদ্বীপে চলমান বিশেষ কর্মসূচির অধীনে এ পর্যন্ত প্রায় ১৬,০০০ অনিয়মিত প্রবাসী বাংলাদেশি কর্মী বৈধ হয়েছেন। দেশটির অর্থনৈতিক উন্নয়ন মন্ত্রণালয়ে নিয়োগকর্তার মাধ্যমে আবেদন করে ‘ওয়ার্ক পারমিট’ বা বৈধতার সুযোগ পেয়েছেন বিভিন্ন খাতে নিয়োজিত এসব বাংলাদেশি কর্মি।

 

 

বাংলাদেশ হাইকমিশনের প্রথম সচিব (শ্রম কল্যাণ শাখা) সোহেল পারভেজ এ তথ্য দিয়ে জানান, আগস্টে মালদ্বীপ কর্তৃপক্ষের কাছ থেকে নিয়মিত বাংলাদেশি শ্রমিকদের সর্বশেষ এই পরিসংখ্যান পেয়েছে মিশন। তিনি আরও জানান, সাম্প্রতিক মাসগুলিতে নিয়মিতকরণ প্রক্রিয়া গতি পেয়েছে।

৫ লাখ জনসংখ্যার মালদ্বীপে প্রায় এক লাখ প্রবাসী বাংলাদেশি কর্মী আছেন । যাদের অনেকে নানা সময়ে নানা কারণে অনিয়মিত বা অবৈধ হয়ে পড়েন। বাংলাদেশ হাইকমিশনের হিসেব মতে, এমন প্রায় ৩৪ হাজার বাংলাদেশি কর্মী আছেন, যাদের বর্তমানে বিশেষ প্রোগ্রামের অধীনে নিয়মিত হওয়ার প্রক্রিয়া চলমান রয়েছে।

 

 

নিয়মিত হলে, ন্যায্য মুজুরি, আইনি, স্বাস্থ্য বিমা সুবিধা এবং ব্যাংকিং চ্যানেলের ব্যবহার করতে পারবেন বাংলাদেশি কর্মীরা।

হাইকমিশন সূত্রে জানা গেছে, সাধারণ ক্ষমার বিশেষ কর্মসূচির আওতায় ২০১৯ সালে প্রায় ৪৫,০০০ অনিয়মিত বাংলাদেশি কর্মী মালদ্বীপ সরকারের কাছে নিবন্ধিত হয়েছিলেন। তাদের মধ্যে প্রায় ১১,০০০ এই বছরের মে পর্যন্ত নিয়মিত হন। এরপর নতুন উদ্যোগে আগস্ট মাস পর্যন্ত আরও ৩ হাজার কর্মী নিয়মিত হয়েছেন।

 

 

করোনা পরিস্থিতিতে নিয়মিতকরণ কিছুটা ধীর গতি ছিল। এ বছরের জুলাই মাসে নিয়মিতকরণের জন্য বাংলাদেশ হাইকমিশনের জারি করা বিজ্ঞপ্তির পর অর্থনৈতিক উন্নয়ন মন্ত্রণালয়ে “ওয়ার্ক পারমিটের” জন্য আবেদনের গতি বাড়ে।

করোনাকালীন সময়ে অর্থনৈতিক সংকট পরিস্থিতে মালদ্বীপ সরকারের নিজ খরচে ৫ থেকে ৬ হাজার অনিয়মিত বাংলাদেশিকে ফেরত পাঠিয়েছে। এর বাইরে অনেক অনিয়মিত কর্মী নিজ উদ্যোগে দেশে ফিরে যান। বেসরকারি তথ্য অনুসারে, সব মিলিয়ে প্রায় ১০ হাজার অনিয়মিত বাংলাদেশি ২০২০ থেকে ২০২২ সালের জানুয়ারি পর্যন্ত দেশে ফিরে গেছেন।

 

 

এদিকে মালদ্বীপের অর্থনৈতিক উন্নয়নমন্ত্রী ইসমাইল ফাইয়াজ, চলমান বিশেষ প্রোগ্রামের নির্দিষ্ট মেয়াদকালের মধ্যে বৈধ না হলে নিয়োগকর্তাসহ অনিয়মিত প্রবাসী কর্মীদের বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন।

 

এ মাসের শুরুতে, মালদ্বীপে নিযুক্ত বাংলাদেশের হাইকমিশনার রিয়ার এডমিরাল এস এম আবুল কালাম আজাদের সঙ্গে সাক্ষাত বৈঠকে মন্ত্রী সরকারের দেওয়া সুযোগ নিয়ে অনিয়মিত প্রবাসী বাংলাদেশি কর্মীদের দ্রুত বৈধ হওয়ার অনুরোধ জানিয়েছেন।

হাইকমিশনার অনিয়মিত বাংলাদেশি কর্মীদের বৈধকরণে সুযোগ দেওয়ায় কৃতজ্ঞতা জানিয়ে বাংলাদেশ থেকে নতুন কর্মী নিয়োগের জন্য মালদ্বীপ সরকারকে কাছে অনুরোধ জানান।

 

গত ডিসেম্বরে মালদ্বীপ সফরের সময় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এবং মালদ্বীপের প্রেসিডেন্ট ইব্রাহিম মোহাম্মদ সোলিহ অনথিভুক্ত বাংলাদেশীদের নিয়মিতকরণের বিষয়ে আলোচনা করেন।

 

 

Leave A Reply

Your email address will not be published.